ইতিহাস ও জীবনী

আল্লাহ কি আসলেই মক্কায় পুজিত ৩৬০ দেবতার একজন ছিলেন?

একঅনলাইন জগতে এই কথাটা  প্রায়ই শোনা যায়। মুসলিমদের দিকে চট করে অভিযোগের আঙুল তুলে বলা হয় – “তোমরা তো আল্লাহর উপাসনা করো। কিন্তু তোমরা কি জানো যে মক্কা...

মরুসিংহ: ওমর মুখতার

সময়টা ছিল ১৯৩১ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর। আজ থেকে প্রায় ৮৭ বছর আগে এই দিনে ইতালিয়ান ঔপনিবেশিক সেনাবাহিনী ওমর মুখতার (রহিঃ)-এর মৃত্যুদন্ড কার্যকর করে। তিনি শ...

সুলতান সালাহউদ্দীন ও ক্রুসেড

সুলতান সালাহউদ্দীন আইয়ুবি রহিমাহুল্লাহ্। শত শত যুদ্ধের মহানায়ক। যিনি টানা বিশ বছর যাবত ক্রুসেডারদের বিরুদ্ধে সাহসিকতার সাথে লড়াই করেছেন এবং পবিত্র ভূম...

ইবনে কাসীর: দ্বীনের স্তম্ভ

তাঁর উপাধি ‘ইমাদ আদ্ব-দ্বীন, দ্বীনের স্তম্ভ। তিনি ইমাম, ফক্বীহ, মুহাদ্দিস, মুফাচ্ছির, ঐতিহাসিক, ইবনে তাইমিয়া’র ছাত্র, হিজরী ৮ম শতকের মনীষী। তিনি হচ্ছ...

বারসিসার কাহিনী: ভিন্ন দৃষ্টিতে

অনেকেই ভালো উদ্দেশ্যে বারসিসার কাহিনী শেয়ার করেন। আমার সবসময়ই কাহিনীটা শুনলে মনে খটকা লাগতো। এ ব্যাপারে নির্ভরযোগ্য ফাতোয়া ওয়েবসাইট ইসলামওয়েবে প্রশ্ন করেছিলাম।

তিনটি ঘটনা এবং একটি সত্যের সাক্ষ্য

নাস্তিক-মুক্তমনা ও খ্রিষ্টান মিশনারিরা কুরআন, হাদীস, সীরাহ এসব সূত্র থেকেই বিভিন্ন ঘটনা বিচ্ছিন্নভাবে উদ্ধৃত করে প্রমাণ করার চেষ্টা করে যে — মুহাম্মাদ (ﷺ) কোনো নবী ছিলেন না। যে সূত্রগুলো (হাদীস ও সীরাত গ্রন্থ) ব্যবহার করে তারা মুহাম্মাদের (ﷺ) নবুয়তকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে চায়, সে সূত্রগুলো থেকেই কিছু ঘটনা উল্লেখ করা হচ্ছে।

শারি’আহ আইন: অত্যাচারীর ত্রাস

“ধর্মীয় স্বাধীনতা”র লোভনীয় ধারণাটা রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক সুবিধা আদায়ের খুব ভালো হাতিয়ার ছিলো। ধর্মের এই প্রভাব কমে যাওয়াটা কি আসলেই রাষ্ট্রের সবাইকে পূর্ণাঙ্গ স্বাধীনতা দিতে পেরেছে? নাকি এটা কর্তৃত্ব কায়েমকারী এক মাধ্যম থেকে অন্য মাধ্যমের কাছে নিছক ক্ষমতা হস্তান্তর?

শিকড়ের সন্ধানে – পর্ব: ০১

বনী ইসরাঈলদের সম্পর্কে জানার সবচেয়ে বড় প্রয়োজনীয়তা বোধ করি তাদের থেকে শিক্ষা নেওয়া। আমাদের মাঝে ওদের কাণ্ডকীর্তি নিয়ে ঠাট্টা তামাশা করার একটা প্রবণতা আছে যে, দেখো ওরা কেমন করতো। আমরা একবারও ভেবে দেখি না যে, অনুরূপ স্বভাব আমাদের মাঝে আছে কি না বা আমরাও তেমনটা করছি কি না।

অন্যরকম উপলব্ধির গল্প

হুমায়ূন আহমেদ তাঁর এক বইতে বলেছিলেন “মৃত মানুষের কোনো গল্প থাকে না। মানুষ গল্প চায়।” হুমায়ূন আহমেদের কথা শতভাগ সত্যি কি না, আমি জানি না। তবে আজ আমি একটি গল্প বলবো। কোনো বানানো গল্প নয়, সত্যি গল্প। গল্পটা কার, তাঁর নামটা কী—এটা বলবো না। শুধুই গল্প।

রূপকথাও হেরেছিলো

কিছু গল্প বাস্তব। তাদের জন্ম আমাদের এই চিরচেনা পৃথিবীতে। কিন্তু তারা হার মানায় রূপকথাকে। আজকের গল্পটা তেমনই এক গল্প। সে গল্পের নায়ক মুসআব বিন উমাইর (রাঃ)।