‘ইলম অন্বেষণের পথে প্রাথমিক সহায়িকা’ শিরোনাম দেখেই বুঝা যাচ্ছে এখানে একদম প্রাথমিক লেভেলের কিছু আলোচনা হতে পারে। তবে এর চেয়ে উচ্চ লেভেলের অনেক গবেষণাই আলিমগণের নিকট মওজুদ রয়েছে, যা আমাদেরকে খুঁজে নিতে হবে। তবে এই প্রাথমিক আলোচনা যেন আমাদেরকে পরবর্তী ধাপের দিকে অগ্রসর হতে সহায়তা করে, এ উদ্দেশ্যেই এখানে কিছু দিকনির্দেশনা উল্লেখ করা হবে (ইনশা আল্লাহ)।

এক দ্বীন সম্পর্কে জানতে অবশ্যই একজন আলিমের শরণাপন্ন হওয়া জরুরী, যিনি আপনাকে সরল-সঠিক পথের প্রাথমিক ধারণা দিবেন, বিভিন্ন বিষয়ে নাসীহা দিবেন এবং আপনার মনে লুকিয়ে থাকা বিভিন্ন প্রশ্নের সহজ জবাব দিবেন। আর এটাই দ্বীনী ইলম শেখার প্রাথমিক ও উত্তম পন্থা। তবে পার্থিব ব্যস্ততা আর নিজের অনীহায় বেশিরভাগ সময়ই তা আর হয়ে উঠে না। সেক্ষেত্রে বিভিন্ন আলিমের কুরআন-সুন্নাহ ভিত্তিক বই পড়ার মাধ্যমে কিছুটা ঘাটতি পূরণ করা যায়। তবে অবশ্যই মনে রাখতে হবে বই কখনো আলিমের রিপ্লেসমেন্ট হবে না, শুধু কিছুটা ঘাটতি পূরণ হতে পারে (ইনশা আল্লাহ)।

IIRT Arabic Intensive

দুই আর বইয়ের মধ্যে কোনো নির্ভরযোগ্য প্রকাশনীর ‘কুরআনুল কারীম’ -এর অনুবাদটাই প্রথমে থাকা চাই। যদিও কুরআনুল কারীমের কিছু আয়াতের অর্থ বুঝতে ব্যাখ্যা প্রয়োজন হয়, তবে অধিকাংশ আয়াতের অর্থ সহজেই অনুধাবন করা যায়। আর বান্দার প্রতি তার রব্ব-এর কথার চেয়ে উত্তম কথা নেই। এছাড়া আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা কুরআনুল কারীমকে মুমিনদের জন্য হিদায়াত ও রহমত বলেও ঘোষণা দিয়েছেন। তাই কুরআনুল কারীমকে অন্তর থেকে অনুধাবন করা জরুরী। আর কুরআনুল কারীমের প্রতিটি আয়াতকে অন্তর থেকে উপলব্ধি করতে তাফসীরের কিতাবগুলো পড়া জরুরী। এর মধ্যে তাফসীর ইবনে কাছীর প্রসিদ্ধ একটি তাফসীর গ্রন্থ। তাই আমরা এই কিতাবটি সংগ্রহ করে নিতে চেষ্টা করবো (ইনশা আল্লাহ)।

তিন ঈমান-আক্বিদার মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়কে স্বচ্ছ রাখতে নির্ভরযোগ্য আলিমদের দারস্ ও বই পড়া আবশ্যক। কারণ স্বচ্ছ আক্বিদা ব্যতীত আমল গ্রহণযোগ্য হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ। এছাড়া ভ্রান্ত আক্বিদা থেকেই শির্ক-বিদআতের মতো বড় পাপের সূচনা হয়। এ বিষয়ে ড. বিলাল ফিলিপ্সের ‘The Fundamentals of Tawheed’ (বাংলায়- তাওহীদের মূলনীতি/এক) বইটি পড়ে নিতে পারি। আর এক্ষেত্রে আমরা সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করবো এবং নির্ভরযোগ্য আলিমগণ থেকেই ইলম গ্রহণ করবো (ইনশা আল্লাহ)।

চার আমল-আখলাখ ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। ঈমান-আক্বিদা সঠিক হওয়ার পর আমল-আখলাখের মাধ্যমেই মানুষের মাঝে প্রতিযোগিতা হওয়া চাই। আর আমাদের আমলকে একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য নির্ধারণ করতে হবে এবং এতে নিয়মিত হতে হবে। তবে প্রতিটা আমল যেন সুন্নাহভিত্তিক হয়, সে বিষয়েও সচেতন হতে হবে। এক্ষেত্রে ড. খোন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর (রহ.) রচিত ‘এহইয়াউস সুনান’ এবং ইমাম নাবাবী (রহ.) রচিত ‘রিয়াযুস স্বা-লিহীন’ বই দু’টি আমাদের উপকারে আসবে। এছাড়া আমলের পাশাপাশি আমাদের আখলাকেরও উন্নতি সাধন করা জরুরী। কারণ বিচারের মাঠে উত্তম চরিত্রের ওজনটা খুব ভারীই হবে। আর সুন্দর চরিত্রের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত রেখে গেছেন আমাদের সালাফগণ। আর এ বিষয়ে স্পষ্ট ধারণা পেতে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম ও তাঁর সাহাবীগণের জীবনী বিষয়ক বইগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে (ইনশা আল্লাহ)। এক্ষেত্রে ‘আর-রাহীকুল মাখতুম’ ও ‘আসহাবে রাসূলের জীবনকথা’ খুবই পরিচিত ও প্রসিদ্ধ দুটি বই।

পাঁচ বর্তমান সময়ে অনলাইনে ইসলামের প্রচার ও প্রসার ভালোভাবেই হচ্ছে (আলহামদুলিল্লাহ)। আর এই সহজলভ্যতার মাঝে কিছু ভেজাল বিষয়ও ঢুকে পড়েছে। তাই এই বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন করা জরুরী। অন্যথায় আমাদের কাছে ইসলামের অনেক কিছুই ভুলভাবে উপস্থাপন হবে। আর এ বিষয়টা সামনে রেখে এখানে কিছু গুরুত্বপূর্ণ ওয়েবসাইটের লিংক দেওয়া হয়েছে যেখান থেকে ইসলাম সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পারবেন (ইনশা আল্লাহ)। তবে অবশ্যই মনে রাখতে হবে- এসব ওয়েবসাইটে যদি অস্পষ্ট কিছু পাওয়া যায়, তবে অবশ্যই কোনো আলিমের শরণাপন্ন হবো।

১. কুরআনুল কারীম বিষয়ক
quranerbani.com
quranerkotha.com

২. হাদীস বিষয়ক
ihadis.com
hadithbd.com

৩. ইসলামিক আর্টিকেল ও বই বিষয়ক
muslimmedia.info
islamhouse.com/bn/main
islamicalo.com
waytojannah.com

৪. বিবিধ বিষয়ক
quraneralo.com
assiratmission.com
assunnahtrust.com
i-onlinemedia.net

৫. ইসলামিক প্রশ্নোত্তর বিষয়ক
islamqa.info/bn
yousufsultan.com/qa
alkawsar.com/section/question-answer
at-tahreek.com

৬. আরবি ভাষা বিষয়ক
alquranervasha.com
arabic.iirt.info

৭. কিছু উপকারী ব্লগ
idream4life.blogspot.com
dampotto.blogspot.com
sottokothon.wordpress.com
preachingauthenticislaminbangla.blogspot.com

আর কোনো বিষয়ে জ্ঞান অর্জনের খুবই উপকারী একটি উপায় হচ্ছে ওই বিষয়ের প্রতি অন্তর থেকে আগ্রহ সৃষ্টি করা। তাই ইসলাম নিয়ে পড়াশুনা করার পূর্বেই এর প্রতি নিজের মধ্যে আকর্ষণ সৃষ্টি করতে হবে। অতঃপর ধৈর্য ও মনোযোগের সাথে তা অধ্যয়ন করতে হবে। পাশাপাশি আল্লাহ সুবাহানাহু ওয়া তা’আলার নিকট প্রার্থনা করতে হবে এই মর্মে যে, আমি যেন উপকারী জ্ঞান অর্জন করতে পারি। আল্লাহ আমাদের জন্য সহজ করুন।

মুসলিম মিডিয়া ব্লগের কার্যক্রম অব্যাহত রাখা সহ তা সামনের দিকে এগিয়ে নিতে আপনার সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন। ব্লগ পরিচালনায় প্রতি মাসের খরচ বহনে আপনার সাহায্য আমাদের একান্ত কাম্য। বিস্তারিত জানতে এখানে ভিজিট করুন।

নিচে মন্তব্যের ঘরে আপনাদের মতামত জানান। ভালো লাগবে আপনাদের অভিপ্রায়গুলো জানতে পারলে। আর লেখা সম্পর্কিত কোন জিজ্ঞাসার উত্তর পেতে অবশ্যই "ওয়ার্ডপ্রেস থেকে কমেন্ট করুন"।

Loading Facebook Comments ...

One Response

  1. আবু হেনা

    ‘জ্ঞানের’ পূর্ব শর্তটাই হচ্ছে, ‘আদব’। যে, যত ‘আদব’ করবে; আল্লাহ্‌ তায়ালা, তার তত ‘জ্ঞান’ বাড়িয়ে দেবেন।

    Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published.

IIRT Arabic Intensive